স্ত্রীর মামলায় হিরো আলম গ্রেপ্তার

0

স্টাফ রিপোর্টার: বিয়ে করেছি। আরও ১০টি মেয়ে নিয়ে ঘুরব। তাতে তোর কি? এ বলেই স্ত্রীকে পেটায় হিরো আলম। মঙ্গলবার রাতের এ ঘটনা নিয়ে শ্বশুর বাড়ির লোকজনও হিরো আলমকে প্রহার করে বলে জানায় আলম নিজেই। হিরো আলমের পিটুনীতে মারাত্মক আহত তার স্ত্রী সাবিহা আক্তার সুমিকে ভর্তি করা হয় হাসপাতালে। বুধবার রাতে এ নিয়ে মামলাও হয়। এরপরই পুলিশ প্রেপ্তার করে। গ্রেফতার হয়েছেন হিরো আলম। আজ বুধবার রাত ৮টায় তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। অবশ্য হিরো আলম তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে পরকীয়ার অভিযোগ আনে। আর স্ত্রী সুমি একাধিক মেয়ের সঙ্গে তার সম্পর্কের কথা জানান। মঙ্গলবার রাতে হিরো আলমের সাথে তার স্ত্রী সুমির বাক বিতন্ডা হয়। এক পর্যায়ে হিরো আলম তাকে মারধর করে। পরে আহত অবস্থায় হিরো আলমের শ্বশুরবাড়ির লোকজন বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ঘটনায় তার শ্বশুরবাড়ির লোকজন থানায় প্রাথমিক অভিযোগ দিলে পুলিশ বুধবার রাতে তাদের মধ্যে মিমাংসার জন্য থানায় ডাকে। এ সময় হিরো আলমের স্ত্রী মিমাংসা মেনে না নিয়ে তার বিরুদ্ধে মামলা করে। পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। বগুড়া সদর থানার ওসি এসএম বদিউজ্জামান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, তাদের মধ্যে মিমাংসার জন্য থানায় ডাকা হয়েছিল। কিন্তু তার স্ত্রী হিরো আলমের বিরুদ্ধে মামলা করলে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

Leave A Reply

Your email address will not be published.