তামিল নায়িকাদের মোটা বলায় চটেছেন হানসিকা

0

বিনোদন ডেস্ক: তামিল নায়িকাদের মোটা বলায় চটেছেন অভিনেত্রী হানসিকা মাতওয়ানি। হানসিকা বিভিন্ন টিভি সিরিজে শিশুশিল্পী হিসেবে কাজ করেছেন। শিশুশিল্পী হিসেবে বলিউডের অনেক বিখ্যাত ছবিতেও তার দেখা মিলেছ। বড় হয়ে হিমেশ রেশামিয়ার বিপরীতে প্রথম বলিউড ছবিতে নায়িকার চরিত্রে অভিনয় করেন তিনি। পাশাপাশি তামিল ছবিতেও একের পর এক হিট ছবি দিয়েছেন তিনি। বর্তমানে তামিল ছবি নিয়েই ব্যস্ত এ নায়িকা। আর তামিল নায়িকাদের মোটা বলায় তিনি ক্ষেপবেননা! এটা হতে পারে! সম্প্রতি হায়েস্ট পেইড টেলিভশিন অভিনেত্রীদের অন্যতম হিনা ‘বিগ বস’-এ গিয়ে নানা বিতর্কিত কথা বলেছেন।

সম্প্রতি তিনিই তামিল নায়িকাদের মোটা বলে বিতর্কে জড়ালেন। কিন্তু এই কথাটি বলার পরে কড় জবাব এল দক্ষিণেরই নায়িকার কাছ থেকে। হিনা খান-এর অভিনয় এবং সৌন্দর্য নিয়ে কোনও সন্দেহ নেই। মাত্র একটি ধারাবাহিকই তাঁকে রাতারাতি তারকাখ্যাতি এনে দিয়েছে। এক ঝটকায় তাঁকে নিয়ে এসেছে হিন্দি টেলিভিশন জগতের প্রথম সারিতে। ‘বিগ বস সিজন ১১’-এ এসে বেশ কিছু বিতর্কিত কথাবার্তা বলেছেন হিনা। তার মধ্যে দক্ষিণী সিনেমা নিয়ে একাধিক মন্তব্য রয়েছে। তিনি তাঁর সহ-প্রতিযোগীদের সঙ্গে কথা প্রসঙ্গে বলেন, দক্ষিণ ভারত থেকে দু’টি ছবির অফার পেয়েছিলাম। কিন্তু সেগুলো ফিরিয়ে দিয়েছি। কারণ আমার ওজন বাড়াতে বলা হয়েছিলো।

আমি তাতে রাজী হ্ইনি। এরপর থেকেই মুলত হিনা তামিল নায়িকা ও সিনেমা নিয়ে নানা ধরনের কথা বলে আসছেন। এমনকি দক্ষিণের নায়িকাদের চেহারা নিয়েও নানা কথা বলতে থাকেন। আবার সরাসরি তাঁদের ‘মোটা’ বলেন হিনা। এই জনপ্রিয় টেলিভিশন অভিনেত্রীর এমন মন্তব্যের ভিডিওটি টুইটারে আপলোড করে সমালোচনা করেন এক ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের লেখিকা। তিনি বলেন, এটা সরাসরি তামিল নায়িকাদের অপমান করা হলো। কারণ তামিল একটি সংস্কৃতি। তাদের সংস্কৃতির সঙ্গে যে ধরনের গড়ন যায় সেরকমই ছবিতেও তুলে ধরা হয়। তাই বলে তাদের নিয়ে মজা করতে পারেন না হিন। এদিকে এ বিষয়টি চোখে পড়ে দক্ষিণী নায়িকা হানাসিকা মাতওয়ানির।

আর তার সঙ্গে সঙ্গেই ক্ষোভে ফেটে পড়েন তিনি। একের পর এক টুইট করে তীব্র বিরোধিতা করেন হিনার এই মন্তব্যের। হানসিকা মাতওয়ানি বেলেন, ‘হিনা কি জানেন না যে বলিউডের বহু অভিনেতা-অভিনেত্রীই দক্ষিণ ভারতের ছবিতে অভিনয় করেন… দক্ষিণ ভারতের অভিনেত্রী হিসেবে আমি আমার ইন্ডাস্ট্রি নিয়ে অত্যন্ত গর্বিত! তার এ ধরনের মন্তব্য সবার জন্য অপমান। তার ক্ষমা চাওয়া উচিত। আরেকটি টুইটে তিনি লিখেন, কি করে একজন অভিনেত্রী একটি অঞ্চলের অভিনেত্রীদের নিয়ে এমন মন্তব্য করতে পারেন! তিনি কি শিক্ষা নেননি। তামিল ছবির একটি ঐহিত্য আছে। এই ঐতিহ্যের কথা মাথায় রেখেই সিনেমা তৈরি করা হয়।

আর তামিল নায়িকা কয়টা মোটা দেখাতে পারবেন তিনি এই সময়ে। আর সেটা যদি হয় তাতে তার কি আসে যায়! ভুলে গেলে চলবে না ‘বাহুবলী’ ছবি কিন্তু সারা বিশ্ব মাত করেছে। সেটাও কিন্তু দক্ষিণ ভারতের ছবি। বলিউড ছবির ব্যবসা সফলতাকেও হার মানিয়েছে এই সিনেমা। এদিকে হানসিকা মাতওয়ানি বলিউডে এখন অভিনয় অনেক কমিয়ে দিয়েছেন। মনযোগী হয়েছেন দক্ষিণ ভারতের ছবিতে। বর্তমানে একাধিক ছবির কাজ নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন এ জনপ্রিয় অভিনেত্রী। এসব ছবিতে সেখানকার শীর্ষ নায়কদের বিপরীতে দেখা যাবে তাকে। সাম্প্রতিক ব্যস্ততা প্রসঙ্গে হানসিকা বলেন, গল্প, নির্মাণশৈলি ও চরিত্রের বিষয়টি মাথায় রেখে বেশ কয়েকটি ছবিতে কাজ করছি।

এগুলোর গল্প একেকটি একেক রকম। চরিত্রও ঠিক তাই। বিভিন্ন ধরনের চরিত্রে আমাকে দেখা যাবে। কোনটায় সেক্সসিম্বল ইমেজে আবার কোনটায় অ্যাকশন কন্যা হিসেবে আপনাদের হানসিকাকে আপনারা দেখতে পাবেন। আমি ছবিগুলো নিয়ে অনেক বেশি আশাবাদী। উল্লেখ্য, ২৬ বছর বয়সী এ অভিনেত্রী বলিউড ও তামিল ছবিতে অভিনয়ের আগে শিশুশিল্পী হিসেবে ভারতের বিভিন্ন চ্যানেলের সিরিয়ালে কাজ করে বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছিলেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.